Swasthya Sthi prakalpa in West Bengal | স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্প

পশ্চিমবঙ্গের দরিদ্র মানুষের বিনা পয়সায় চিকিৎসার জন্য স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্প চালু হয় | স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্প ঘোষণা হয় 17 ই ফেব্রুয়ারি 2016 সালে | এই স্কিমটি আনুষ্ঠানিকভাবে 30th ডিসেম্বর 2016 এ মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের চালু করেন |

প্রতিবছর 1.5 লক্ষ টাকা থেকে 5 লক্ষ টাকা পর্যন্ত স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পে চিকিৎসার সুযোগ পাওয়া যায় বিনা পয়সায় |

স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের কিছু উল্লেখযোগ্য বৈশিষ্ট্য :-

  • কার্ডের মেয়াদ এক বছর এবং প্রতিবছর পুনরায় নবীকরণ যোগ্য
  • প্রতিবছর 1 লক্ষ 50 হাজার টাকা পর্যন্ত বিনামূল্যে চিকিৎসার সুবিধা পাওয়া যাবে যার সম্পূর্ণ খরচ বহন করবে রাজ্য সরকার
  • হাসপাতালে থাকাকালীন রোগীর সকল প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা এবং সমস্ত ঔষধপত্র বিনামূল্যে দেওয়া হবে
  • বিশেষ কিছু অসুখের ক্ষেত্রে পাঁচ লাখ টাকা পর্যন্ত পরিষেবা পাওয়া যাবে যেমন – a.ক্যান্সার, b. নিউরোসার্জারি, c. হৃদরোগজনিত অস্ত্রোপচার d. লিভার সংক্রান্ত অসুখ, e. রক্ত জনিত সমস্যা ইত্যাদি
  • হাসপাতাল থেকে ছুটির সময় রোগীকে গাড়ি ভাড়া বাবদ 200 টাকা দেওয়া হবে
  • এই পরিষেবা পাওয়া যাবে জেলার নথিভুক্ত সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে
  • হাসপাতালে চিকিৎসা খরচ সরাসরি হাসপাতালকে বীমা কোম্পানি দেবে পূর্বনির্ধারিত ব্যয়ের হার অনুযায়ী
  • স্বাস্থ্য সাথী স্মার্ট কার্ড পাওয়া যাবে সংশ্লিষ্ট গ্রাম পঞ্চায়েত / ব্লক অফিস / মিউনিসিপ্যালিটি অফিস থেকে

কারা স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের সুবিধা পাবেন –

স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সদস্য, চুক্তিভিত্তিক দৈনিক ও নিম্ন আয়ের প্রাপ্ত কর্মচারী যথা আশা কর্মী ও অঙ্গনারী কর্মী ও সহায়ক, সিভিক স্বেচ্ছাসেবক, নির্বাচিত পঞ্চায়েত সদস্য, MGNREGA, আনন্দধারা, DRDC, প্যারা টিচার, PMGSY

প্রকল্পের উপভোক্তার দায়িত্ব ও কর্তব্য এবং করনীয় কাজ –

  • চিকিৎসা পাওয়ার জন্য স্মার্ট কার্ড নিয়ে নথিভুক্ত হসপিটালে যোগাযোগ করতে হবে
  • হাসপাতালের তালিকা বই সযত্নে হাতের কাছে রাখুন
  • যেকোন অবস্থাতেই স্মার্ট কার্ড টি পরিবারের নথিভূক্ত সদস্য ছাড়া অপর কোন ব্যক্তিকে হস্তান্তর করবেন না
  • হসপিটালে ভর্তি না থাকা অবস্থায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে স্মার্টকার্ড দেবেন না
  • হাসপাতালে ভর্তি হবার সময় আপনার মোবাইল নাম্বার অবশ্যই নথিভুক্ত করুন
  • ছুটির সময় যাতায়াত বাবদ 200 টাকা নগদ চেয়ে নিন, সংশ্লিষ্ট ভাউচার / রেজিস্টার খাতায় সই করুন বা টিপ ছাপ দিন
  • হাসপাতাল থেকে ছুটির সময় আপনার স্মার্ট কার্ড টি সংগ্রহ করতে ভুলবেন না
  • কার্ডের অবশিষ্ট টাকা চিকিৎসা প্যাকেজ রেট এর চেয়ে কম থাকলে বাকি টাকা রোগীকে দিতে হবে
  • চিকিৎসার জন্য কত টাকা কম্পিউটারে ব্লক হল জেনে নিন এবং চিকিৎসার পর কার্ডের অবশিষ্ট টাকার পরিমান জেনে নিন, ডিসচার্জ স্লিপ চেয়ে নেবেন

জেনে রাখুন গুরুত্বপূর্ণ তথ্য –

  • স্মার্ট কার্ড হারিয়ে গেলে নতুন কার্ড পাওয়া যায়, তবে উপভোক্তাকে নতুন কার্ড তৈরির খরচ বহন করতে হবে |এই সুবিধা পাওয়ার জন্য উপভোক্তাকে জেলা কার্যালয়ে যোগাযোগ করতে হবে
  • আপৎকালীন অবস্থায় স্মার্ট কার্ড আনতে ভুলে গেলে আগামী 24 ঘন্টার মধ্যে হাসপাতালে কার্ড এনে জমা দিতে হবে
  • হাসপাতালে ভর্তি না হলে স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের ওষুধ পত্রাদি ও রোগ নির্ণয় বিনামূল্যে পাওয়া যাবে না
  • হাসপাতালে ভর্তি হবার সময় নিজের মোবাইল আপনার ভর্তির বিবরণ SMS মাধ্যমে জানতে পারবেন নাম্বারটি নথিভুক্ত করতে ভুলবেন না
  • হাসপাতালে ভর্তি হবার সময় আপনার নথিভুক্ত মোবাইল নাম্বারে অভিযোগ জানানোর জন্য SMS পাবেন
  • স্মার্ট কার্ডের নাম না থাকলেও নবজাতক শিশু এক বছর পর্যন্ত এই পরিষেবা অন্তর্ভুক্ত হবে

স্বাস্থ্য সাথী স্মার্ট কার্ডের সুবিধা –

  • বছরে 1 লক্ষ 50 হাজার টাকা পর্যন্ত বিনামূল্যে স্বাস্থ্য বীমা
  • স্বাস্থ্য সাথী কার্ড থাকলে জেলা, রাজ্য এমনকি দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে চিকিৎসা পাওয়া যাবে
  • 1900 বেশি ধরনের রোগের চিকিৎসা
  • হাসপাতালে ভর্তির পূর্ববর্তী 1 দিন আর ছাড়া পাওয়া 5 দিন পর্যন্ত সমস্ত ওষুধ প্যাকেজ অন্তর্ভুক্ত
  • পূর্ববর্তী থাকারও এই স্বাস্থ্য বীমার অন্তর্ভূক্ত ( শর্তাধীন )
  • যাতায়াত বাবদ 200 টাকা নগদ সরকারি হাসপাতাল এবং বেসরকারি হাসপাতালে ক্ষেত্রেও পাওয়া যাবে
  • পরিবারের সমস্ত সদস্য এই বীমার সুবিধা পাবেন

হাসপাতালে দায়িত্ব ও কর্তব্য –

  • রোগীকে হাসপাতাল থেকে ছুটি দেওয়ার পরে পাঁচদিনের ওষুধ পত্রাদি দিয়ে বুঝিয়ে দিন
  • ছুটির সাথে সাথে রোগীকে বা রোগীর পরিবারের সদস্যকে স্বাস্থ্য সাথী স্মার্ট কার্ড দিয়ে দিন
  • রোগী বা পরিবারের সদস্যকে স্মার্ট কার্ড থেকে কেটে দেওয়া টাকার পরিমাণ ও অবশিষ্ট টাকার পরিমাণের কথা জানান
  • কোন কারণে যান্ত্রিক গোলযোগ হলে রোগীর চিকিৎসার সুবিধার্থে TPA সাথে কথা বলুন জেলা অথবা SNA সাথে যোগাযোগ করুন
  • চিকিৎসা সংক্রান্ত নথি নির্দিষ্ট সার্ভিসে আপলোড করুন

অভিযোগ নথিভুক্তকরণ পদ্ধতি –

  • উপভোক্তার কোন অভিযোগ থাকলে – জেলা সদর দপ্তরে যোগাযোগ করুন
  • অথবা https://swasthyasathi.gov.in/ ওয়েবসাইটে গিয়ে অভিযোগ নথিভুক্ত করুন
  • Toll Free নাম্বারে কল সেন্টারে অভিযোগ নথিভুক্ত করুন
  • আরো বিস্তারিত জানতে হলে যোগাযোগ করুন জেলা নোডাল অফিসার / ব্লক উন্নয়ন আধিকারিক ও গ্রাম পঞ্চায়েতে
  1. স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পে আপনার নাম আছে কিনা অনলাইনে কিভাবে চেক করবেন ?
  2. স্বাস্থ্য সাথী কার্ড এর মধ্যে কার কার নাম আছে কিভাবে অনলাইনে চেক করবেন ?
  3. আপনার কাছাকাছি কোন কোন হাসপাতালে স্বাস্থ্য সাথী পরিষেবা পাওয়া যায় অনলাইনে কিভাবে চেক করব ?

বিস্তারিত দেখুন নিচের ভিডিওতে –

স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট লিংকে ক্লিক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*